আলাপে বিস্তারে ‘বঙ্গনাট্যের সন্ধানে’

বই পড়ার ক্রমবর্ধমান চর্চা অব্যাহত রাখার প্রত্যয়ে বেঙ্গল বই নিয়মিত আয়োজন করেছে আলোচনাচক্র। ‘আলাপে বিস্তারে’ শিরোনামে এই আলোচনায় প্রকাশিত বইয়ের লেখক ও বিশিষ্ট আলোচক মূল্যায়ন করেন বিভিন্ন গ্রন্থের। গত শুক্রবার ২৫ মে বিকাল ৪টায় বেঙ্গল বই প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয় এই আলোচনা চক্রের ৪র্থ পর্ব।

এদিন আলোচনার বিষয় ছিলো ভারতের পশ্চিমবঙ্গের নাট্যতাত্ত্বিক অংশুমান ভৌমিক রচিত বঙ্গনাট্যের সন্ধানে। আলোচক হিসেবে ছিলেন নাট্যজন মামুনুর রশিদ, নাট্য সমালোচক প্রফেসর আবদুস সেলিম। অনুষ্ঠানের শুরুতে লেখক সম্পর্কে এবং বই সম্পর্কে ভূমিকা বক্তব্য প্রদান করেন কালি ও কলম সম্পাদক আবুল হাসনাত। বঙ্গনাট্যের সন্ধানে বইটির বিভিন্ন দিক নিয়ে কথা বলেন লেখক অংশুমান ভৌমিক। বাংলাদেশের বর্তমান সময়ের মঞ্চ নাটক এবং পরিবেশ নিয়ে আলোচনা করেন নাট্যজন মামুনুর রশিদ। তিনি বলেন, যদি আমরা এখন নতুন কাজ না করতে পারি, তাহলে আমাদের বর্তমান সময়ের নাটক হুমকির মুখে পড়বে যেটা কারও জন্যই মঙ্গলজনক নয়।

অনুষ্ঠানে ত্রপা মজুমদার, রামেন্দ্র মজুমদার প্রেরিত শুভেচ্ছা বানী পড়ে শোনান এবং লেখকের কাছে বাংলাদেশের নাটক নিয়ে একটি বই লেখার দাবি জানান। প্রফেসর আবদুস সেলিম বলেন, অংশুমানের ২১টি প্রবন্ধের মধ্যে ৮টি প্রবন্ধই বাংলাদেশকে নিয়ে! যেটায় প্রকাশ পায় তার তীব্র ভালোবাসা বাংলাদেশকে নিয়ে।

বাংলাদেশের প্রতি আগ্রহ ও ভালোবাসার কারণ জানতে চাইলে লেখক বলেন, অনেক বছর ধরে একটু একটু করে এই বন্ধন তৈরি হয়েছে। কারণ আমার বাবা ছিলেন বরিশালের। আমাদের বাড়িতেও নিয়মিত বাংলাদেশের নাটকের চর্চা হত।