ঢাকার অদূরে সুফি শিল্প প্রদর্শনী

স্রষ্টা বা পরম সত্ত্বাকে জানার বা বোঝার জন্য বিভিন্ন ধর্মে ভিন্ন ভিন্ন সাধনা আছে। ইসলাম ধর্মে যে সাধনা প্রচলিত এবং সর্বজন বিদিত তা সূফীবাদ।স্রষ্টা বা পরম সত্তার সাথে মিলনই সুফি সাধনার পরম লক্ষ্য। আত্মা সম্পর্কিত আলোচনা এর মুখ্য বিষয়।বাংলাদেশেও সুফি চর্চার পুরোনো ঐতিহ্য বিদ্যমান। প্রচলিত আছে নানা সুফি শিল্পকর্মের। সম্প্রতি ঢাকার অদূরে বেগম রেস্টুরেন্ট ও গ্যালারিতে শুরু হয়েছে সুফি বিষয়ক একটি আন্তর্জাতি শিল্পকর্ম প্রদর্শনী। আয়োজকরা দাবি করছেন বাংলাদেশে এরকম আয়োজন এই প্রথম।

গত ২৭ ফেব্রুয়ারি উদ্বোধন হয় এই প্রদর্শনী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন শিল্পী ও ভাস্কর অলক রায়, শিল্পী ও শিক্ষক বিশ্বজিৎ গোস্বামী এবং শিল্পী ও শিক্ষক সঞ্জয় দে রিপন। ভারতীয় শিল্প বোদ্ধা, সম্পাদক ও কবি বিনা সরকার ইলিয়াস কবিতার সমাবেশে একটি শিল্পকর্ম প্রদর্শনীতে থাকছে এখানে। দুজন অস্ট্রেলিয়ান শিল্পী পিয়া সুইটিং ও নিনি আন্তেনিনির শিল্পকর্মও স্থান পেয়েছে এই প্রদর্শনীতে। আরও থাকছে পাকিস্তানি শিল্পী ইমরান জাইবের নিউ মিডিয়া ত্রিমাত্রিক শিল্পকর্ম। এছাড়াও দেশের অনেক স্বনামধন্য শিল্পীরা এ আয়োজনের অংশ হচ্ছেন যাদের মধ্যে আছেন সুফি শিল্পী রনি আহম্মেদ, শিল্পী আশরাফ হোসেন, শিল্প নির্দেশক মুহাম্মদ জহির উদ্দিন।

শান্ত মারিয়াম বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাইন আর্ট বিভাগের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর কোর্সের গুণী শিল্পীদের সমাহারে দিনব্যাপী কর্মশালা ও কনফারেন্স এর আয়োজন করা হয়েছে। যাদের মধ্যে আছে শিমুল, রানা খন্দকার, শিখা, রাফিউল ইসলাম, হাসিনূর বীথি এবং হাবিব।

প্রদর্শনীটি উৎসর্গ করা হয়েছে সর্দার এ আউলিয়া খাজা বাবা মঈনুদ্দিন চিশতীকে (রহ.)-কে।