জ্ঞানতাপস আব্দুর রাজ্জাক স্মারকগ্রন্থ

অধ্যাপক আবদুর রাজ্জাক জ্ঞানতৃষ্ণা ও পাণ্ডিত্য নিয়ে একাই হয়ে উঠেছিলেন পরিপূর্ণ একটা প্রতিষ্ঠান। তাঁর মৌলিক চিন্তা ও দৃষ্টিভঙ্গি অনেককে যেমন জ্ঞানচর্চায় উৎসাহিত করেছে, তেমনই গণতান্ত্রিক চিন্তা ও বৈষম্যহীন সমাজ বিনির্মাণেও উদ্বুদ্ধ করেছে। বেঙ্গল পাবলিকেশনস থেকে ২০১২ সালে প্রকাশিত হয় ‘জ্ঞানতাপস আবদুর রাজ্জাক স্মারকগ্রন্থ’। বইটির সম্পাদক এমিরেটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। ২০১৫ সালে বইটির দ্বিতীয় সংস্করণ প্রকাশিত হয়।
দ্বিতীয় সংস্করণে যুক্ত হয় অধ্যাপক আবদুর রাজ্জাকের তিনটি অভিভাষণ এবং পাকিস্তানের উন্নয়ন-পরিকল্পনাসম্পর্কিত একটি ইংরেজি লেখা। লেখাটি অতিশয় গুরুত্বপূর্ণ। জাতীয় বাজেটে প্রতিরক্ষা খাতে ব্যয়বৃদ্ধির সঙ্গে আমাদের মতো দেশে সামরিক শাসন প্রবর্তনের যৌক্তিক সম্পর্কের কথা এতে তিনি বলেছেন। বাংলা অভিভাষণ তিনটিতেও তাঁর চিন্তার গুরুত্বপূর্ণ প্রতিফলন ঘটেছে। এ ছাড়া অধ্যাপক রাজ্জাক সম্পর্কে খালিদ শামসের একটি রচনা এই সংস্করণে যুক্ত হয়েছে। আর প্রকাশিত কয়েকটি আলোকচিত্রও এ সংস্করণে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।
সর্বোপরি বইটিতে অধ্যাপক রাজ্জাকের ব্যক্তিত্ব, জ্ঞান ও শিক্ষকতা জীবনের নানা বিষয় নিয়ে রচনা রয়েছে। এ ছাড়া রয়েছে তাঁর রচিত প্রবন্ধ ও সাক্ষাৎকার। এ রচনাগুলোর ভেতর দিয়ে পাঠক বাংলাদেশের মধ্যবিত্তের বিকাশের বিচ্ছুরণ, শিক্ষাব্যবস্থা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ উঠে এসেছে।
বইটিকে বেশ কয়েকটি ভাগে ভাগ করা যায়। যেমন : ভূমিকা, জীবন ও কর্ম, স্মৃতিকথা ও মূল্যায়ন, সাক্ষাৎকার, জীবনপঞ্জি, আলোকচিত্র ইত্যাদি।
এই বইয়ে সংকলিত অধিকাংশ লেখাই অধ্যাপক রাজ্জাকের মৃত্যুতে প্রতিক্রিয়া হিসেবে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত। যার ফলে লেখাগুলোয় অনেক পুনরাবৃত্তি দেখা যায়। তা অবশ্য স্মারক সংকলনের ক্ষেত্রে হয়েই থাকে। তবু তাঁর অনুরাগী ও স্বজনেরা নিজেদের স্মৃতিরোমন্থনের মধ্য দিয়ে তাদের সাধ্যমতো বিভিন্ন ঘটনা বর্ণনা করে গেছেন, যা ওই সময়ের গুরুত্বপূর্ণ খতিয়ান হয়েই থাকবে। আর তা ছাড়া অধ্যাপক রাজ্জাকের সঙ্গে তাদের সেই ব্যক্তিগত ঘটনার একটা ঐতিহাসিক মূল্যও বিদ্যমান। এ দিকটি বিবেচনা করলে বইটির গুরুত্ব অনস্বীকার্য।
বইটিতে ‘নিবেদন’ নামে একটি চমৎকার ও পরিমিত ভূমিকা লিখেছেন অধ্যাপক আনিসুজ্জামান, যে ভূমিকাটিকেই মনে হয় সমস্ত বইয়ের সারাৎসার।

জ্ঞানতাপস আব্দুর রাজ্জাক স্মারকগ্রন্থ
সম্পাদক অধ্যাপক আনিসুজ্জামান
দ্বিতীয় সংস্করণ: মে ২০১৫
মূল্য: ৭৫০ টাকা