তেজস হালদারের একক ভাস্কর্য প্রদর্শনী

রাজধানীর ধানমন্ডির এজ গ্যালারিতে চলছে ভাস্কর তেজস হালদার জস-এর একক ভাস্কর্য প্রদর্শনী। ‘মুভিং স্পিরিট’ শীর্ষক এ প্রদর্শনীতে বিভিন্ন বিষয়ে করা ভাস্করের চারটি সিরিজ প্রদর্শিত হচ্ছে। যার মধ্য দিয়ে তেজস হালদার মানুষের সম্পর্ক, অনুভূতি, প্রেম-প্রকৃতি, রাজনৈতিক অবস্থাসহ নানা বিষয় উপস্থাপন করেছেন। একই সঙ্গে প্রদর্শনীর ভাস্কর্য উপস্থাপন করা হয়েছে গুলশানের এজ গ্যালারিতেও। গত ২৮ জুলাই প্রদর্শনীর উদ্বোধন স্বনামধন্য আলোকচিত্রী শহিদুল আলম। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান জনাব আবুল খায়ের এবং এজ গ্যালারির প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি ইফতেখার এ খান।

ভাস্কর্যের ফর্মকে ভেঙে দেয়ালে তুলে এনেছেন শিল্পী। লোহার পাতের ওপরে পড়া মরচে, তাতে ওয়েল্ডিং-এর কাজ এনেছে ভিন্নমাত্রা। এর এপরে এনামেল পেইন্টিং করেছেন তিনি। শিল্পধারায় এক নতুন সংযোজন নিয়ে তিনি হাজির হয়েছেন শিল্পরসিকদের সামনে। এছাড়াও, ব্রোঞ্জের ভাস্কর্য রয়েছে। রয়েছে কাঠ ও লোহার কাজও। সবমিলিয়ে মোট ৮২টি শিল্পকর্ম স্থান পেয়েছে এবারের প্রদর্শনীতে।

উল্লেখ্য, তেজস হালদার জস বাংলাদেশের এ প্রজন্মের স্বনামধন্য এক ভাস্কর। দেশি বিদেশী বিভিন্ন প্রদর্শনীতে প্রসংশিত হয়েছেন তিনি এবং তাঁর শিল্পকর্ম। পেয়েছেন অনেক পুরস্কার ও সম্মাননা। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ‘শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন গোল্ডমেডেল ২০০৪’ এবং ‘এশিয়ান আর্ট বিয়েনাল ২০০৬’এর সম্মানজনক স্বীকৃতি। তার একটি শিল্পকর্ম স্থান পেতে যাচ্ছে বেলজিয়ামের গ্লোআর্ট গ্যালারিতে।

ধানমন্ডির নয় নম্বর সড়কের পার্ক হাইটের গ্যালারিতে এবং গুলশানের এজ গ্যালারিতে প্রদর্শনীটি চলবে ১১ আগস্ট পর্যন্ত।